Bhasha Dibosh Kobita - একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসের কবিতা

 Bhasha Dibosh Kobita - একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসের কবিতা


Bhasha Dibosh Kobita - একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসের কবিতা


২১ শে ফেব্রুয়ারি মানেই ভাষা দিবস । এই দিনটিকে নিয়ে আবেগ আর ভালোবাসার অন্ত নেই । তাই ভাষা দিবসে আপনার জন্য আমাদের বিশেষ নিবেদন । 

ভাষা দিবসের কবিতা


একুশের কবিতা  
      কবি - আল মাহমুদ  
  
ফেব্রুয়ারির একুশ তারিখ  
দুপুর বেলার অক্ত  
বৃষ্টি নামে, বৃষ্টি কোথায় ?  
বরকতের রক্ত।  
  
হাজার যুগের সূর্যতাপে  
জ্বলবে এমন লাল যে,  
সেই লোহিতেই লাল হয়েছে  
কৃষ্ণচূড়ার ডাল যে !  
  
প্রভাতফেরীর মিছিল যাবে  
ছড়াও ফুলের বন্যা  
বিষাদগীতি গাইছে পথে  
তিতুমীরের কন্যা।  
  
চিনতে না কি সোনার ছেলে  
ক্ষুদিরামকে চিনতে ?  
রুদ্ধশ্বাসে প্রাণ দিলো যে  
মুক্ত বাতাস কিনতে ?  
  
পাহাড়তলীর মরণ চূড়ায়  
ঝাঁপ দিল যে অগ্নি,  
ফেব্রুয়ারির শোকের বসন  
পরলো তারই ভগ্নী।  
  
প্রভাতফেরী, প্রভাতফেরী  
আমায় নেবে সঙ্গে,  
বাংলা আমার বচন, আমি  
জন্মেছি এই বঙ্গে।



বাংলা ভাষা নিয়ে কবিতা



২১শে ফেব্রুয়ারী  
      - মনিরুজ্জামান জীবন  
  
দীর্ঘ সংগ্রামে অর্জিত তুমি  
একুশে ফেব্রুয়ারী,  
একুশের রক্তেলেখা – আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা।  
একুশ একুশ বলে আবার বাংলারই প্রান্তরে,  
রক্তাক্ত গোলাপ রক্তে রাঙানো তাঁর মুখ।  
এই রক্ত বিলাসী গোলাপটি কাহার তরে –  
একুশের রক্তেলেখা বুকে এঁকে করেছি পণ।  
ভুলবো না তোমায় কভু অসুখ দুঃখক্ষণ,  
সালাম – বরকত – রফিক – জব্বার।  
আরো হাজার শত ভাইয়ের রক্তে ভেজা,  
২১ শে ফেব্রুয়ারী  
স্মৃতির জানলা খুলে আজই মোদেরই অন্তরে।  
ঐ যে দর্শিত বোনের ক্রন্দন আর মায়ের হাহাকার,  
জাগিয়ে তোলে বায়ান্নর কত ধিক্কার।  
পাকিস্থানের শাসকেরা করল আইন জারি,  
উর্দু হবে রাষ্ট্রভাষা, বাংলা দাও ছাড়ি।  
যুদ্ধ শুরু করেন – সকল দামাল ছেলে,  
প্রাণ দিয়ে শহীদ হন, জয়টুকু মেলে।  
স্বাধীন হল বাংলাদেশ তাদের ত্যাগের জন্য,  
ধন্য মোরা সবাই আজ তাদের ত্যাগের জন্য।  
বাংলা ভাষার মর্যাদা সবাই মোরা চাই  
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হল তাই।  
তাইতো সবার মুখে মুখে একই রকম বানী,  
আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারী।


Bangla Bhasha Dibosh Kobita


সংগৃহীত কবিতা  
  
একুশ মানে চেতনা আমার,  
মায়ের ভাষায় কথা বলার;  
একটা স্বাধীন দেশের জন্য,  
সবাই মিলে যুদ্ধ করার।  
একুশ মানে লুকানো বীজ,  
একাত্তরে ফলবে ফসল;  
রাজপথের ঐ রক্তের দাগ,  
একদিন তা হবেই সফল।  
একুশ মানে ফিরে পাওয়া,  
আমার সকল অধিকার;  
বুক ফুলিয়ে বলতে পারি,  
বাংলা আমার স্বাধিকার।  
একুশ মানে প্রভাত ফেরী,  
শীতের শাল জড়িয়ে গায়ে;  
সবার হাতে ফুলের তোড়া,  
হাঁটছি সবাই খালি পায়ে।  
একুশ মানে শহীদ মিনার,  
আলপনা আর তাজা ফুলে;  
পুষ্পস্তবক রাখছে সবাই,  
রাজনীতি আর বিভেদ ভুলে।  
একুশ মানে বাংলা মায়ের,  
প্রাণ জুড়ানো মুখের ভাষা;  
স্বপ্ন সাধের সেই ভাষাতে,  
মেটাই মনের সকল আশা।  
একুশ মানে বই মেলাতে,  
উপচে পড়া ভীরের মাঝে;  
জম্পেশ এক আড্ডা হলে,  
মন বসেনা কোন কাজে।  
একুশ মানে নতুন বই,  
নতুন মোড়ক উন্মোচন;  
কোন বইটা কিনবো প্রথম,  
কিছুতে ভেবে পায়না মন।  
একুশ মানে পুরোনো স্মৃতি,  
হাতড়ে বেড়াই নিজের মনে;  
প্রভাত ফেরী শহীদ মিনার,  
সব ছেড়ে তুমি নির্বাসনে।



Tags - Bangla Kobita, Bengali Poem, Bhasha Disbosh
Bhasha Dibosh Kobita - একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসের কবিতা Bhasha Dibosh Kobita - একুশে ফেব্রুয়ারি ভাষা দিবসের কবিতা Reviewed by Bongconnection Original Published on February 20, 2021 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.