Independence Day Poem In Bengali 2020 (স্বাধীনতা দিবসের কবিতা)

 Independence Day Poem In Bengali 2020 (স্বাধীনতা দিবসের কবিতা)


Independence Day Poem In Bengali 2020 (স্বাধীনতা দিবসের কবিতা)


Independence Day Poem In Bengali  স্বাধীনতা দিবস কি আর স্বাধীনতার কবিতা ছাড়া সম্পূর্ণ হয় নাকি ? আমাদের এই স্বাধীনতা কত মানুষের আত্মত্যাগের মাধ্যমে এসেছে, তাতো নিশ্চই অজানা নয় । প্রসঙ্গত একটা সময় পূর্ববঙ্গ বা বাংলাদেশ কিন্তু ভারতের ই সঙ্গে ছিল । তাই স্বাধীনতা দিবসের কবিতা দুই দেশের মানুষকে নিয়েই লেখা । বাংলার দুইপ্রান্ত থেকে আমাদের লক্ষ লক্ষ পাঠককে উৎসর্গ করছি আমাদের স্বাধীনতা দিবসের কবিতা নিয়ে এই বিশেষ পোস্টটি ....

Independence  Day Poem In Bengali Language



স্বাধীনতা তুমি

রবিঠাকুরের অজর কবিতা, অবিনাশী গান।

স্বাধীনতা তুমি

কাজী নজরুল ঝাঁকড়া চুলের বাবরি দোলানো

মহান পুরুষ, সৃষ্টিসুখের উল্লাসে কাঁপা-

স্বাধীনতা তুমি

শহীদ মিনারে অমর একুশে ফেব্রুয়ারির উজ্জ্বল সভা

স্বাধীনতা তুমি

পতাকা-শোভিত শ্লোগান-মুখর ঝাঁঝালো মিছিল।

স্বাধীনতা তুমি

ফসলের মাঠে কৃষকের হাসি।

স্বাধীনতা তুমি

রোদেলা দুপুরে মধ্যপুকুরে গ্রাম্য মেয়ের অবাধ সাঁতার।

স্বাধীনতা তুমি

মজুর যুবার রোদে ঝলসিত দক্ষ বাহুর গ্রন্থিল পেশী।

স্বাধীনতা তুমি

অন্ধকারের খাঁ খাঁ সীমান্তে মুক্তিসেনার চোখের ঝিলিক।

স্বাধীনতা তুমি

বটের ছায়ায় তরুণ মেধাবী শিক্ষার্থীর

শানিত কথার ঝলসানি-লাগা সতেজ ভাষণ।

স্বাধীনতা তুমি

চা-খানায় আর মাঠে-ময়দানে ঝোড়ো সংলাপ।

স্বাধীনতা তুমি

কালবোশেখীর দিগন্তজোড়া মত্ত ঝাপটা।

স্বাধীনতা তুমি

শ্রাবণে অকূল মেঘনার বুক

স্বাধীনতা তুমি পিতার কোমল জায়নামাজের উদার জমিন।

স্বাধীনতা তুমি

উঠানে ছড়ানো মায়ের শুভ্র শাড়ির কাঁপন।

স্বাধীনতা তুমি

বোনের হাতের নম্র পাতায় মেহেদীর রঙ।

স্বাধীনতা তুমি বন্ধুর হাতে তারার মতন জ্বলজ্বলে এক রাঙা পোস্টার।

স্বাধীনতা তুমি

গৃহিণীর ঘন খোলা কালো চুল,

হাওয়ায় হাওয়ায় বুনো উদ্দাম।

স্বাধীনতা তুমি

খোকার গায়ের রঙিন কোর্তা,

খুকীর অমন তুলতুলে গালে

রৌদ্রের খেলা।

স্বাধীনতা তুমি

বাগানের ঘর, কোকিলের গান,

বয়েসী বটের ঝিলিমিলি পাতা,

যেমন ইচ্ছে লেখার আমার কবিতার খাতা।




স্বাধীনতা ও অভ্যাস

           - সুজান মিঠি


জানলায় সকাল নামতেই বাবা এসে ডাকে,

খোকা ওঠে পড়। অনেক যে কাজ বাকি!

আমি চোখ রগড়ে বাবাকে জিজ্ঞেস করি...

কেন বাবা? আজ কী? দুগ্গা পুজো নাকি?


বাবা আমার চিবুক ছুঁয়ে বলে, দূর বোকা!

আজ যে পনেরই আগস্ট, আজ সেই দিন...

যেদিন দুশ বছরের গ্লানি মুছে গিয়ে এক

নতুন সূর্য উঠেছিল। ভারতবর্ষ হয়েছিল স্বাধীন!


ও আজ স্বাধীনতা দিবস! পতাকা তুলবো!

বলবো বন্দেমাতারম! দেবো মালা...

গান গাইবে মা, তুমি, ছোটোকাকু, আমিও

তারপর চকলেট খাওয়ার পালা!


নারে বাবা, স্বাধীনতা আসলে এগুলো নয়।

জানিস ব্রিটিশরা ছিল ভীষণ অত্যাচারী!

কত মানুষ দিয়েছেন প্রাণ ওদের হাতে...

কতবার এ সোনার দেশে হয়েছে মহামারী!


ওরা সব নিয়ে গেছে নিজেদের দেশে 

আমাদের আটকে রেখেছে, ওরা নিষ্ঠুর!

ভারতবাসীকে বলেছে কুকুর! কত রক্ত

গুলি…দেশমাতার বুকে তুলেছে কান্নার সুর!


তাইতো একদিন জেগে উঠেছিল মানুষ!

একটু একটু করে জ্বলেছিল আগুন!

কত প্রাণ হলো বলিদান, কত প্রাণ নিশ্চুপ!

ভারতবর্ষে বয়ে গেল নদী কেবল রক্ত আর খুন…


তারপর ওরা ভয় পেলো, অনেকদিনের পরে।

ভাবলো, এবার পালাতেই হবে উপায় নেই।

আজ ওদের পালানোর দিন, খোকা জানিস!

অবশেষে স্বাধীনতার সুখ পাওয়ার দিন সেই।


শুনতে শুনতে আমার চোখে আসে জল।

বাবার গলা জড়িয়ে বলি, বন্দি যদি পরাধীনতা!

আমাদের যে টিয়া খাঁচায় থাকে, ছোলা খায়!

ওরও তবে কষ্ট অনেক? বাবা, ওরও আছে ব্যাথা?


হঠাৎ বাবা চুপ করে যায় দেখি। মা এগিয়ে আসে।

খাঁচার দরজা খুলে দিয়ে বলে, যা পাখি উড়ে!

হাততালি দিই আমি। কী মজা! কী মজা!

কিন্তু পাখিটা কিছু পরে ফিরে আসে ঠিক ঘুরে।


আমি অবাক হয়ে বলি, বাবা এটা কেন হলো?

ও যে স্বাধীনতা পেল, গেল না কেন তাও?

পাখি তখন বাইরের মাইক শুনে শুনে বলছে ...

একটানা...তোমরা রক্ত দাও! রক্ত দাও!


আমি মনখারাপ নিয়ে মালা গাঁথতে বসি।

বাবার মুখেও ব্যাথা, ফেললো দীর্ঘশ্বাস।

তারপর মাকে বললো, জানো, খোকার মা!

পরাধীনতা কখনো কখনো হয়ে যায় অভ্যাস।


আরো পড়ুন, স্বাধীনতা দিবসের কবিতা



Bengali Poem Swadhinata


তুমি আসবে বলে

         - শামসুর রাহমান


তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা,

সাকিনা বিবির কপাল ভাঙল,

সিঁথির সিঁদুর মুছে গেল হরিদাসীর।


তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা,

শহরের বুকে জলপাইয়ের রঙের ট্যাঙ্ক এল

দানবের মতো চিৎকার করতে করতে।


তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা,

ছাত্রাবাস বস্তি উজাড় হলো।

রিকয়েললেস রাইফেল আর মেশিনগান খই ফোটাল যত্রতত্র।


তুমি আসবে বলে, ছাই হলো গ্রামের পর গ্রাম।

তুমি আসবে বলে,

বিধ্বস্ত পাড়ায় প্রভুর বাস্তুভিটার ভগ্নস্তূপে দাঁড়িয়ে

একটানা আর্তনাদ করল একটা কুকুর।


তুমি আসবে বলে, হে স্বাধীনতা,

অবুঝ শিশু হামাগুড়ি দিল পিতামাতার লাশের উপর।


তোমাকে পাওয়ার জন্যে, হে স্বাধীনতা,

তোমাকে পাওয়ার জন্যে আর কতবার ভাসতে হবে রক্তগঙ্গায়?

আর কতবার দেখতে হবে খাণ্ডবদাহন?"


Shadhinota Dibosh Bangla Kobita



।। স্বাধীনতা দিবস।।

                - শিবনাথ মৈত্র


এভাবেই বছর বছর,

আগস্ট পনের আর ছাব্বিশ জানুয়ারি,

পতাকা উত্তোলন, প্রভাতের নানা বাড়াবাড়ি।

অল্পবিস্তর ভাষণের শেষে ,

মাংসের দোকানের দ্বারে এসে,

ভালো মন্দ দুপুরের খাওয়া ,

তারপর এক ঘুম দেওয়া।

পতাকারা ইতিমধ্যে বৃষ্টি তে হাওয়ায়,

লতপতে মাটিতে লোটায়।

সকালে দেশপ্রেম বেশ!

টুকুখানিও বেলায় অবশেষ ।

      তখন এক পাগল  একমনে,

      কুড়োয় পতাকা মাটি থেকে,

      বস্তায় যত্নে ভরে রাখে,

      এপাড়া ওপাড়া ঘুরে ঘুরে।

কৌতুহল নিয়ে কাছে যাই,

বিড়বিড় বলছে , শুনতে পাই--

এরজন্য ক্ষুদিরাম ,কানাই 

নিজেদের প্রাণ দিল ভাই !

   ---০---


আরো পড়ুন, Independence Day Quotes, SMS & Wishes In Bengali



Bangla Freedom Poem


      স্বাধীনতা তুমি


স্বাধীনতা তুমি লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে 

অর্জিত একটু সুখের ছোঁয়া, 

স্বাধীনতা তুমি প্রচণ্ড রোদ্রদাহে

একমুঠো উষ্ণ পুবাল হাওয়া। 

স্বাধীনতা তুমি বেঁচে থাকার এতোটুকু আশা,

তুমি সুখ তুমি স্বপ্ন তুমিই ছিলে 

প্রতিটি দিনের প্রতিটি ক্ষণের প্রত্যাশা।

স্বাধীনতা তোমাকে পেয়েছি 

অনেক সাধনা অনেক যাতনা সয়ে,

অসংখ্য প্রাণ আজো আছে 

আমাদের মাঝে অমর হয়ে। 

স্বাধীনতা তুমি বাংলার গর্বিত জননী 

তুমি বিজয়ের অজস্র রক্তের স্রোতস্বিনী। 

স্বাধীনতা তুমি মায়ের সাথে করা সেই শপথ

তোমাকে ছিনিয়ে এনেছি মাথা উঁচু করে

সৃষ্টি করেছি চলার সুগম পথ। 

স্বাধীনতা তুমি কারো জীবনে 

পরিবার হারাবার বুক ফাটা কান্না,

স্বাধীনতা তুমিই আবার পরিচয় 

ফিরে পাবার সান্ত্বনা। 

স্বাধীনতা তুমি জীবন সত্যের নিদর্শন 

বাস্তব সত্যের নিদারুন উপমা, 

স্বাধীনতা তুমি কবি সাহিত্যিকের মহাকাব্য 

আর প্রেমিকের হারানো প্রিয়তমা। 

স্বাধীনতা তুমি অসংখ্য প্রাণের আর্তনাদ 

কখনও আবার অসহায়ের মুখে একচিলতে হাসি, 

তাইতো স্বাধীনতা তোমায় এতো ভালোবাসি। 


যতদিন বেঁচে থাকবো তোমায় করবো সম্মান,

ছাড়বনা কখনও তাদের যারা 

কটূক্তি করে তোমায় করবে অপমান।

করিলাম পণ আজকের এই মাহেন্দ্রক্ষণে, 

শ্রদ্ধাঞ্জলি দিয়ে যাবো সকল শহিদদের স্মরণে।

স্বাধীনতা তুমি অনেকের অনেক কিছু 

হাজরো বিরাঙ্গনার মাথার উন্মুক্ত কেশ,

তোমাকে আগলে রাখবো বুকে

কথা দিলাম তোমায় হে প্রিয় বাংলাদেশ।




স্বাধীনতা মানে কী???

      -  পিউ ঘোষ


আইজ মুদের স্বাধীনতা দিবস বটে

জানিস গ টুকুর মা সেটো কী? 

লিখাপড়াটো তো শিখিস লাই জাইনবিটা কী কইরে? 


ই গেরামের মাইস্টোর টো বুলছে- যি দিন

লাল মুখো সাহেবরা ই দিশ হতে

চলেটো গেলক সি দিন উইঠেছে স্বাধীন দিশ গইড়ে। 


যারা দিশের লেগে পেরান দিয়েঞছে-

বুকের রক্ত টো জল কইরে ফাঁসি টোও লিয়েছে-

তাদের সনমান দিতে -ফোটো কে দিতে হয় মালা। 


কী যে বুলো টুকুর বাপ? ছাতার মাথা

বুইঝতে লারি, সইরে চল, ইখন রান্না টো হবেক

সাফাই করতে হবেক আঙন,ঘর, চালা। 


স্বাধীনতা কী খেতেটো দিবেক গ? 

দিবেক তুর বিটির রোগের ওষুধ টো? 

বুলো, স্বাধীনতা টো লাইগবে মুর কুন কামে? 


আরে, শুন শুন- স্বাধীনতা মুদের

জন্মগত অধিকার আঞ্ছে,স্বাধীনতা ই

 সবার জীবনে বিষ্টির মুতো আশা লামে।


তবে যা কেনে টুকুর বাপ

তুর স্বাধীনতার কাইছ থেইকে তুই

দু কাঠা চাল, তেল, লুন লিয়ে আয়। 


আর দু বোতল ওষুধ টো ও চেয়ে লিস

যার বিনা মুর ই টুকুন সাধের বিটিটোর

পরানডা উইরে যেতে টো চায়।।



ভালো লাগলে প্রিয়জন ও বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না....

ভালো থাকুন, কবিতায় থাকুন।..

Thank You, Visit Again...


Tags - Independence Day, Bangla Kobita, Bengali Poem

Independence Day Poem In Bengali 2020 (স্বাধীনতা দিবসের কবিতা) Independence Day Poem In Bengali 2020 (স্বাধীনতা দিবসের কবিতা) Reviewed by Bongconnection Original Published on August 08, 2020 Rating: 5

No comments:

Wikipedia

Search results

Powered by Blogger.